অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য সেরা ৫ টি ক্লিনার অ্যাপস!

প্রতিনিয়ত মোবাইলে নিত্যনতুন অ্যাপস ডাউনলোড করার ফলে বা unknown link এ ক্লিক করার ফলে মোবাইল ফোন ম্যালওয়ার দ্বারা সংক্রমিত হচ্ছে। এই ম্যালওয়ার বা ভাইরাস গুলো মোবাইলের কার্যক্ষমতাকে ধীর করে দেয়।

এর ফলে মোবাইল ফোন খুব দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়, এছাড়াও এর ফলে মোবাইলের ব্যাক্তিগত তথ্য গুলো চুরি হয়ে যেতে পারে।

তবে আপনি যদি আপনার ফোনটি প্রতিনিয়ত ক্লিন করে মোবাইল থেকে ভাইরাস অপসারণ করেন তবে আশা করা যায় আপনার মোবাইলটি আগের মতোই স্বাভাবিক ও ভালো থাকবে।

আরও পড়ুনঃ

বৃষ্টির পানিতে ফোন ভিজে গেলে করনীয়

মোবাইলে ডিসপ্লে সমস্যার কারণ ও সমাধান জেনে নিন

মোবাইলে ডিজিটাল স্বাক্ষর করবেন কিভাবে জেনে নিন

তাই চলুন জেনে নেই

অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের জন্য সেরা কিছু ক্লিনার অ্যাপস সম্পর্কে।

1. Memory Boost (মেমোরি বুষ্ট)

Memory Boost একটি ক্লিনার অ্যাপস। যেটি আপনার মোবাইল ফোনের রেমের স্পেস বৃদ্ধি করে। ফলে মোবাইলে উপর তেমন চাপ পড়ে না। মোবাইলের স্বাভাবিক গতি বজায় থাকে।

memory boost মোবাইলের ব্যাকগ্রাউন্ডের রানিং টাস্ক গুলো বন্ধ করে ফোনের স্পেস বৃদ্ধি করে। এটি ব্যবহারের ফলে আপনার ফোনের রেম সর্বদা পরিষ্কার থাকবে। এবং সেই সাথে ফোনের কার্যক্ষমতাও চলমান থাকবে।

2. Free up Storage (ফ্রী স্টোরেজ)

এটি মোবাইলের সকল জাঙ্ক ফাইলগুলো নষ্ট করে দিয়ে সর্বদা মোবাইলের স্টোরেজ খালি রাখে। এটি এমন একটি অ্যাপ যেটি নিজে থেকেই সকল জাঙ্ক ফাইল খুজে ধ্বংস করে মোবাইলের স্পেস বৃদ্ধি করে এবং মোবাইলে থাকা আবাঞ্চিত সকল প্রোগ্রাম মুছে দিয়ে আপনার মোবাইলের গতি বজায় রাখবে।

এককথায় বলতে গেলে, কিছুক্ষন পর পর মোবাইল ব্যবহারের ফলে অর্থাৎ কোনো ফাইল বা প্রোগ্রাম ব্যবহারের ফলে যেই জাঙ্ক ফাইল গুলোর সৃষ্টি হয় সেগুলো ধ্বংস করাই হলো এর কাজ।

3. Game Booster (গেম বুষ্টার)

এটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার ফোনের গেম খেলার স্পীড বৃদ্ধি পাবে।
অনেক সময় পর্যন্ত মোবাইলে গেম খেলার ফলে মোবাইল নানা ধরনের ভাইরাস দ্বারা প্রভাবিত হয় বলে মোবাইল হ্যাং করতে শুরু করে।

কিন্তুু আপনি যদি আপনার মোবাইলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করেন তাহলে এটি আপনার ফোনে গেম খেলার পর যেসকল আবাঞ্চিত জাঙ্ক ফাইল থাকে সেগুলো অপসারণ করে মোবাইলটি ফ্রেস রাখবে।

অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন মানেই গেমিংয়ে হেব্বি মজা। কে না চায় তার ফোনটি হাই স্পীড গেমিং ফোন হোক! কিন্তুু এই সকল জাঙ্ক ফাইল গুলোর প্রভাবে মোবাইলের গেমিং স্পীড স্লো হয়ে যায়। তাই মোবাইলের গেমিং স্পীড হাই করতে চাইলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করুন।

4. Smart App Manager (স্মার্ট অ্যাপ ম্যানেজার)

ইন্টারনেট বা ওয়েবসাইটে ব্রাউজ করার সময় অযথা কিছু ফাইল কোনো রকম পারমিশন ছাড়াই আমাদের ফোনে চলে এসে স্টোরেজ দখল করে রাখে। ফোন স্টোরেজ ফুল থাকার কারনে মোবাইলের গতিশক্তি ক্ষীন হয়ে যায়।

এই ধরনের জাঙ্ক ফাইল গুলো থেকে মোবাইলকে মুক্ত রাখতে আপনি এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারেন।
এটি আপনার ফোনের অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস বা ফাইলগুলো নিজে থেকেই রিমুভ করে ফোন স্টোরেজ খালি রাখে ফোনের গতিশীলতা বজায় রাখবে।

5. Control Your Privacy (প্রাইভেসি কন্ট্রোল)

আমাদের মোবাইলে এমন কিছু অ্যাপস থাকে যেগুলো আমাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অনাকাঙ্ক্ষিত পারমিশন (যেমন, কল, লোকেশন,এসএমএস, ক্যামেরা, কনটাক্টস) ইত্যাদি দিয়ে থাকে।

যেগুলো সম্পর্কে আমাদের তেমন কোনো ধারণা থাকে না। কিন্তুু এই অ্যাপসটি ব্যবহারের মাধ্যমে সেই ক্ষতিকর অ্যাপসগুলো আন-ইনস্টল করে মোবাইলের প্রাইভেসি বৃদ্বি করতে পারবেন।

6. Widget (ওইজেট)

ওইজেট অন্যান্য অ্যাপগুলোর মতোই একটি মোবাইল ক্লিনার অ্যাপস। এটি হোম স্কীনে ব্যবহার করে কুইক বুষ্ট করলে মোবাইল ফোনের পারফরম্যান্স বৃদ্ধি পায়।

7.Speed Up & Clean

এটি এমন একটি ক্লিনার অ্যাপস যেটি ইনস্টল করে চালু করার সাথে সাথে আপনার মোবাইল ফোনের সকল আবাঞ্চিত ফাইল গুলো মুছে ফেলবে।

এটি ব্যবহার যেই সুবিধা গুলো পাওয়া যাবে তা নিচে লেখা হলো;-

১/ এই ক্লিনার অ্যাপসটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার মোবাইলের সকল অপ্রয়োজনীয় কল বা এসএমএস গুলো রিমুভ হয়ে স্টোরেজ খালি হয়ে যাবে।

২/ এছাড়াও এটি আপনার ফোনের সিকিউরিটি বৃদ্ধি করবে। ফোনটির নিরাপত্তা বাড়বে বলে ফোন হ্যাক হয়ে তথ্য চুরি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না।

৩/ এই অ্যাপটি আপনার মোবাইল ফোনের খুবই কম স্টোরেজ দখল করবে।

৪/ এই অ্যাপটি একসাথে ৫৪০ এমবি ক্লিন করে থাকে। মজার ব্যাপার হলো এটি আপনার পারমিশন ছাড়া নিজে থেকে কোনো ফাইলই রিমুভ করবে না। এতে করে কোনো ধরনের ঝামেলা প্রেস করতে হয় না।

৫/ আপনার মোবাইলে থাকা কোনো একটি অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস। যেটি আপনার মোবাইলে জন্য ক্ষতিকর কিন্তু আপনি জানতেন না! সেগুলো এই অ্যাপটি সিলেক্ট করে আপনাকে নোটিফিকেশন পাঠাবে এবং আপনি অনুমতি দেওয়ার সাথে সাথে সে এগুলোকে রিমুভ করে দিবে।