অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের পর্দায় সবুজ বিন্দু দেখলেই বুঝতে হবে ফোনটি হ্যাকিংয়ের শিকার হওয়ার সম্ভাবনা আছে

প্রযুক্তির ব্যবহার মানুষের জীবনকে সহজ করে দিয়েছে। প্রযুক্তি ব্যাবহারে মানুষের যেমন সুবিধা হয়েছে , তেমনি অসুবিধা ও রয়েছে। আজকের দিনে কম্পিউটার ও স্মার্টফোন হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকদের ব্যাক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয় হ্যাকাররা।

জনপ্রিয়তার কারণে কম্পিউটারের  মতো হ্যাকারদের লক্ষ্য হয়ে উঠেছে স্মার্টফোন হ্যাক করা। স্মার্টফোন যদি একবার হ্যাক হয়ে যায়, তাহলে ডিভাইসে থাকা সকল ধরনের তথ্য হ্যাকারদের হাতে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যেমন – একাউন্ট থেকে টাকা, ছবি, ভিডিও, প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র ইত্যাদি।

এছাড়া হ্যাকাররা ঘরে বসে আপনার স্মার্টফোনের ক্যামেরা ব্যাবহার করে আপনি কি করেন, কার সাথে কথা বলেন, কোথায় যান সব কিছু দেখতে পারে। একবার ফোন হ্যাক হয়ে গেলে হ্যাকারের হাত থেকে মুক্তি পাওয়া কষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু মোবাইল ফোন হ্যাক হওয়ার পূর্বে তা বুঝার কিছু উপায় আছে।

তাই আজকে আমরা জেনে নিব মোবাইল ফোনের হ্যাকিং হওয়ার পূর্ব লক্ষন কি?

এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন হ্যাকিং হওয়ার পূর্বে মোবাইলে কিছু চিহ্ন দেখা যায়। তা মধ্যে একটি হলো, ফোনের পর্দায় সবুজ বিন্দু দেখা যাওয়া। এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের পর্দায় সবুজ বিন্দু দেখলেই বুঝতে হবে ফোনটি হ্যাকিং হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

ফোন হ্যাক হলে প্রতিটি মানুষকে বিরাট সমস্যায় পড়তে হয়। তাই মানুষকে মোবাইল ফোনের দিকে সবসময় নজর রাখতে হবে। এবং ফোনের মধ্যে যে কোনো রকম সন্দেহ দেখা দিলে বা স্মার্টফোনের পর্দায় সবুজ বিন্দু দেখলেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যাবস্হা নিতে হবে।

এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলা স্মার্টফোনের পর্দায় অনেক সময় বিভিন্ন চিহ্ন দেখা যায়। কিন্তু ফোনের পর্দায় ওপরের দিকে সবুজ বিন্দু দেখা দিলে ফোনটি হ্যাকিং হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যদি কেউ লুকিয়ে স্মার্টফোন ব্যাবহারকারীর মাইক্রোফোন বা ক্যামেরা ব্যাবহার করে আড়িপাতে তখনই উপরে দেওয়া ছবিতে এই চিহ্ন দেখা দিতে পারে।

স্মার্টফোন থেকে কল করার সময় কিংবা কোনো কিছু রেকর্ড করার সময় ফোনের পর্দায় উপরে ডান দিকে এই রকমের সবুজ বিন্দু দেখা দেয়। কল করা বা রেকর্ড করার সময় ছাড়া অন্য যে কোনো সময় এই রকমের সবুজ বিন্দু দেখলেই আপনার স্মার্টফোনে নজরদারি অ্যাপ থাকার সম্ভাবনা থাকে।

আপনার মনে রাখতে হবে, স্মার্টফোনে নজরদারির সম্ভাবণা থাকলে, ফোনের সেটিংস থেকে ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন ব্যাবহারের অনুমতি কোন কোন অ্যাপের রয়েছে তা দেখে নিতে হবে। যদি কোন অ্যাপের ব্যাবহারের অনুমতি না থাকা সত্বেও অ্যাপটি নজরদারি করে তাহলে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে।

স্মার্টফোনের পর্দার উপরে আমরা প্রায় সময় সবুজ বিন্দু দেখি। এতে আমাদের মনে উদ্বেগ সৃষ্টি হয়। এই সম্পর্কে সাইবার স্মার্টের সহপ্রতিষ্ঠাতা জ্যামি আখতার বলেন, পর্দার উপর সবুজ বিন্দু দেখা দিলে উদ্বেগ হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু আপনি যদি সত্যি সন্দেহজনক কিছু পেয়ে থাকেন, তাহলে খুব  দ্রুত সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

সাধারণত তৃতীয় পক্ষের তৈরি অ্যাপ ভয়েস সেন্সর ব্যাবহার করলে এইরকম বিন্দু দেখা দেয়। এই রকম কোনো অ্যাপে যদি ক্যামেরা বা মাইক্রোফোন ব্যাবহারের অনুমতি দেওয়া না থাকে, তাহলে বিষয়টি অবশ্যই যাচাই করে দেখতে হবে। 

স্মার্টফোনে কেউ নজরদারি করছে এই রকম সন্দেহ দেখা দিলে ফোনে প্লে প্রটেক্ট দিয়ে ম্যালওয়্যার স্ক্যান দিতে হবে। এবং অন্য যন্ত্র থেকে  ইমেইলের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে হবে ও স্মার্টফোন “ফ্যাক্টরি রিসেট” করতে হবে।

স্মার্টফোনের পর্দার উপরে সবুজ বিন্দু দেখলেই উপর থেকে সোয়াইপ করে কোন অ্যাপ আপনার ফোনের ক্যামেরা বা মাইক্রোফোন সেন্সর ব্যাবহার করছে তা দেখে নিতে পারবেন। এছাড়া আইকনটিতে ক্লিক করলে অ্যাপের নামটিও দেখতে পাবেন। আর এখান থেকে অ্যাপটির ক্যামেরা বা মাইক্রোফোন সেন্সর ব্যাবহারের অনুমতি বন্ধ করতে পারবেন। 

মোবাইল ফোনের অ্যাপে ব্যাবহারকারী অ্যাপের যেসব তথ্যে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে, তা দেখতে হলে ফোনের সেটিংস থেকে প্রাইভেসি নির্বাচন করে পারমিশন ম্যানেজারে ক্লিক করে পরবর্তী পেজে যেতে হবে। সেখানে ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন সেন্সরে কোন কোন অ্যাপ প্রবেশ করতে পারবে তা দেখতে পাবেন।