এই ১০টি উপায়ে আপনি আপনার Internet Speed সহজেই বাড়িয়ে নিতে পারেন

নতুন মোবাইল কিনার পর মোবাইলে থাকা অন্যান্য ডিভাইস গুলোর গতি যেমন দ্রুত থাকে তেমনি এর ইন্টারনেটের গতিও দ্রুত থাকে।

কিন্তুু মোবাইল পুরাতন হওয়ার সাথে সাথে এর নেটের গতিও স্লো হয়ে যায় অর্থাৎ কমে যায়। আবার কখনো কখনো স্থান,কাল বা অবস্থান ভেদেও নেটের স্পীডের তারতম্য ঘটে।

ঈদের ছুটিতে বা অন্য যেকোনো ছুটিতে অবসর সময় কাটানোর জন্য গ্রামে বা অনেকে আবার শহরে বেড়াতে যায়। কিন্তুু তখন নতুন জায়গায় সাধারণত ভালো নেট পাওয়া যায় না তাই যোগাযোগের ক্ষেত্রে মারাত্মক সমস্যা দেখা দেয়।

আর নানুর বাড়ির তো কোনো তুলনাই হয় না। নানুর বাড়ি মানেই সারাদিন নেটের সমস্যা।

মোবাইলে ইন্টারনেটের গতি বাড়ানোর উপায়

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে আপনি আপনার মোবাইলের ইন্টারনেট স্পিড আরো বাড়ি তুলতে পারেন.

1. সঠিক নেটওয়ার্ক ব্যবিহার করুন

মোবাইলের ইন্টারনেটের গতি নির্ভর করে আপনার নির্বাচন করা সঠিক নেটওয়ার্কের উপর। মোবাইলে ২জি নেটওয়ার্কের পরিবর্তে অবশ্যই ৩জি বা ৪জি ব্যবহার করবেন। তবে ৫জি হলে আরো ভালো হয়

কারন ২জি নেটওয়ার্কের গতি ৩জি ও ৪জি অপেক্ষায় অনেক কম, তাই এর ইন্টারনেট গতিও অনেক কম হয়। আর ৩জি ও ৪জির গতি ২জি অপেক্ষায় অধিক হওয়ায় নেটের গতিও অধিক হয়।

2. নেটওয়ার্ক সেটিংস

মোবাইলের নেটওয়ার্ক সেটিংসে গিয়ে দেখুন সঠিক নেটওয়ার্ক যুক্ত আছে কি না। এটি শুধু 2G বা 3G নেটওয়ার্কের সাথে সীমাবদ্ধ নয়।

অনেক মোবাইলের ক্ষেত্রে মোবাইল স্বয়ংক্রিয় ভাবে GSM/WCDMA/LTE নির্ধারিত থাকে। যদি স্বয়ংক্রিয় ভাবে নির্ধারন না হয় তাহলে ম্যানুয়ালি WCDMA সিলেক্ট করুন।

3. ফোনের ক্যাশ মেমোরি পরিষ্কার করুন

আপনার মোবাইলে মেমোরি ও ক্যাশ মেমোরি পরিষ্কার করেও ফোনের ইন্টারনেট গতি বাড়াতে পারেন।

মোবাইল মেমোরির পরিবর্তে এসডি কার্ড বা অনলাইন ড্রপবক্স বা গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করতে পারেন।

মোবাইলেের ক্যাশ মেমোরি ভরা থাকলে যন্ত্রটিরও গতি কমে যায় ফলে ধীরে ধীরে ইন্টারনেটেরও গতি কমে যায়।

4. অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস গুলো রিমুভ করুন

আমাদের মোবাইল ফোনে অনেক অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস থাকে যেগুলো আমাদের কোনো কাজে আসে না কিন্তুু তারপরও আমরা এগুলো ফোন থেকে রিমুভ করি না।

এই অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস গুলো মোবাইলের কর্মক্ষমতা কমিয়ে মোবাইলের গতি স্লো করে দেয়। ফলে মোবাইলের গতি স্লো হওয়ার সাথে সাথে এর ইন্টারনেট স্পীডও স্লো হয়ে যায়।

তাই মোবাইলের ইন্টারনেট গতি দ্রুততর করতে হলে এখনই মোবাইলে থাকা অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশন গুলো অপসারণ করুন।

5. ব্রাউজার টেক্সট মোডে রাখুন

আপনার ছবির প্রয়োজন না হলে ব্রাউজার টেক্সট মোডে রাখুন।

6. ফাস্ট ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করুন

ফাস্ট ওয়েব ব্রাউজার গুলোর মধ্যে, অপেরা মিনি, ইউসি বা ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করতে পারেন।

তাছাড়া, নিয়মিত মোবাইল এ থাকা apps গুলু update করুন।

7. মোবাইলে কভার ব্যবহার এড়িয়ে চলুন

আমরা সবাই জানি মোবাইল থেকে ক্ষতিকর রেডিয়েশন বের হয় যা আমাদের দেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। কিন্তু কভার ব্যবহার করলে এই রেডিয়েশনের মাত্রা কিছুটা কমে যায়।

কিন্তুু খুব কম মানুষই জানে যে এই রেডিয়েশনের সাথে মোবাইলের নেটওয়ার্ক কানেকশন জড়িত। অর্থাৎ যত বেশি রেডিয়েশন নির্গত হবে ততবেশি নেটের গতি দ্রুততর হবে।আবার রেডিয়েশন কম নির্গত হলে নেটের গতিও কম হবে।

তাই মোবাইলে ইন্টারনেট গতি বৃদ্ধি করতে চাইলে রেডিয়েশন নির্গত হওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে আর সেইজন্য মোবাইলে কভার ব্যবহার এড়িয়ে চলতে হবে।

8. স্পীড বুষ্ট অ্যাপ ব্যবহার করুন

মোবাইলে ইন্টারনেট গতি বাড়ানোর জন্য কিছু অনলাইন অ্যাপস ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো আপনার মোবাইলের কোনো ধরনের ক্ষতি সাধন করবে না বরং আপনার মোবাইলের নেট দ্রুত গতির করবে।

যেমন:

  • ইন্টারনেট বুষ্টার এন্ড অপটিমাইজার
  • ফাস্টার ইন্টারনেট ২ এক্স
  • ইন্টারনেট স্পীড বুষ্টার

ইত্যাদি।

9. ইন্টারনেট সংযোগ পরীক্ষা করুন

ডাটা সংযোগ করার পর দেখে নিবেন সেটার এক্সেস আপনার মোবাইলে আসছে কি না।

ইন্টারনেট গতি পরীক্ষা করার অ্যাপ “Speed test” ব্যবহার করে দেখে নিতে পারেন ইন্টারনেট গতির বর্তমান অবস্থা।

10. মোবাইলের এরোপ্লেন মুড অপ করে রাখুন

আমরা অনেকেই ভুলবশত বা না জেনেই মোবাইলের এরোপ্লেন মুড অন করে রাখি। এই এরোপ্লেন মুড অন করে রাখার কারনে মোবাইলের নেট কানেকশন ক্লোজ হয়ে যায়।

তাই মোবাইলের নেট কানেকশন রাখার জন্য অবশ্যই এরোপ্লেন মুড অপ করে রাখতে হবে।

শেষ কথা, আপনি যদি উপরের পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন এবং সে অনুযায়ী কাজ করেন তাহলে নানুর বাড়ি, খালার বাড়ি,মামার বাড়ি, দাদুর বাড়ি অর্থাৎ সব বাড়িতেই আপনি আপনার মোবাইলে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগ পাবেন।