মোবাইল টাওয়ারের রেডিয়েশন মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়

গতকাল শনিবার মহাখালীর ব্র্যাক সেন্টার ইনে টেলিকম অ্যান্ড টেকনোলজি রিপোটার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের ( টিআরএনবি) আয়োজিত এক গোল টেবিলে বক্তারা বলেন,

“মোবাইল ফোন টাওয়ার থেকে নির্গত রেডিয়েশন মানুষ কিংবা জীবজন্তু বা উদ্ভিদের ক্ষতি হয় না।”

অনেকের ধারণা এটি সকল জীবের উপর বিশেষ করে মানুষ,, পশুপাখি ও গাছপালার উপর মারাত্মক ক্ষতিকর  প্রভাব ফেলছে। কিন্তু সকলের মনে রাখা দরকার মোবাইল ফোন টাওয়ার থেকে নির্গত রেডিয়েশন ক্ষতিকর নয় বরং মানুষ তথা সকল জীবের জন্য নিরাপদ।

মোবাইল ফোন টাওয়ার আন্তর্জাতিক সকল নীতিমালা মেনে বসানো হয়। তাছাড়া নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির পর্যবেক্ষণে মোবাইল ফোন টাওয়ারের নির্গত রেডিয়েশন সহনশীল মাত্রার নিচে পাওয়া যায়।

বক্তারা বলেন, রেডিয়েশন দুই ধরনের।

  1. আয়োনাইজড রেডিয়েশন – গামারশ্মি, এক্স-রে, অতি বেগুনি রশ্মি ইত্যাদি আয়োনাইজড রেডিয়েশন। এইগুলি মানবদেহের ক্ষতি করতে পারে।
  2. নন-আয়োনাইজড রেডিয়েশন – যেগুলো মোবাইল ফোন, রাউটার, মোবাইল টাওয়ার থেকে নির্গত হয়।

এগুলো ক্ষতি করে না এবং এতে ক্ষতির কিছু নেই। বাড়িতে নিত্য প্রয়োজনীয় মোবাইল ফোন, মাইক্রোয়েভ ওভেন, রাউটার ইত্যাদিতে যে পরিমাণ রেডিয়েশন নির্গত হয়, মোবাইল ফোন টাওয়ারের রেডিয়েশন ও তেমন হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে টাওয়ার ও অপারেটর কোম্পানির প্রতিনিধিরা বলেন, টাওয়ারের রেডিয়েশন জনিত ভয়ের কারণে টাওয়ার স্হাপনে মানুষ বাধা দেয়।

রাজধানীর তিনশটির ও বেশি জায়গায় মোবাইল সাইট স্হাপন করা যাচ্ছে না। মোবাইল সেবার মান উন্নয়ন করতে হলে টাওয়ার স্হাপনের বাধা দূর করতে হবে।

মানুষের মন থেকে রেডিয়েশন ভয় দূর করতে হবে। বহু প্রতিষ্ঠান মোবাইল নেটওয়ার্কে বুস্টার, জ্যামার, রিপিটার ইত্যাদি ব্যাবহার করছে, যার কারণে নেটওয়ার্কে সমস্যা হচ্ছে।

গ্রাহকেরা উন্নত সেবা পাচ্ছে না। হাজার কোটি টাকা ব্যায়ে ক্রয়কৃত তরঙ্গ ব্যাবহারে বাধা প্রদান করছে। সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ভবনে নির্মানকৃত টাওয়ার সরিয়ে নিতে হচ্ছে। এর একমাত্র কারণ মানুষের মনের কাল্পনিক ভীতি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় ছিলেন বিটিআরসির উপপরিচালক ড: শামসুজ্জোহা,সন্ঞালন করেন টিআরএনবির সভাপতি রাশেদ মেহেদী, এছাড়া একটেল, গ্রামীণ ফোন, বাংলা লিংক, এয়ারটেল, নকিয়া, ইডটকোর এর প্রতিনিধিসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Comment