আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে যেকোনো মোবাইল নিয়ন্ত্রণ করুন

বর্তমান যুগে শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত সকলে মোবাইল ব্যাবহার করে। আর মোবাইল যারা ব্যাবহার করে তারা বিভিন্ন তথ্য বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন লোকের কাছে পাঠায়।

তথ্য গুলো হতে পারে বিভিন্ন ছবি, মেসেজ, ভিডিও ইত্যাদি। অনেক সময় ভূল করে এই সকল তথ্য পাঠানোর ফলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় পড়তে হয়।

যার কাছে এই সকল মেসেজ, ছবি বা ভিডিও যায়, তাকে এই তথ্য ডিলেট করতে বলা হলে সে তথ্য ডিলেট করতে চায় না বা ডিলেট করে না। অনেক সময় এই সকল তথ্য দিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে চায়।

এই সকল সমস্যা সমাধানের জন্য আপনার মোবাইল দিয়ে দূরের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, আর সেজন্য মোবাইল দিয়ে দূরের ডিভাইস কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা জানা জরুরি।




আজকের আর্টিকেলে আমরা জানব কিভাবে মোবাইল দিয়ে দূরের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করা যায় তার উপায়।

আজকের এই আর্টিকেলটি পড়লে কাউকে ভুল করে মেসেজ, ছবি কিংবা ভিডিও পাঠালে সেজন্য আর সমস্যায় পড়তে হবে না। যদি কোনে ভুল করে থাকেন তা শোধরানোর সুযোগ করে দেবে নতুন একটি অ্যাপ।

সেই অ্যাপ আপনার মোবাইলে ইনস্টল করা থাকলে আপনি অন্যের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। আর আপনার নিজের পাঠানো মেসেজ, ছবি, ভিডিও কিংবা অন্য কিছু ইচ্ছামতো ডিলিট করতে পারবেন  আপনি। সেই অ্যাপটির নাম হলো ‘স্ট্রিংকস’।

আপনি এই অ্যাপের সাহায্যে যার কাছে মেসেজ, ছবি, ভিডিও কিংবা যা কিছু পাঠিয়েছেন, তার ডিভাইস বা মোবাইল থেকে সে সব কিছুই ডিলিট করতে পারবেন। এমনকি মেসেজ পড়ার পর বা ছবি কিংবা ভিডিও ডাউনলোড করা হয়েছে তারপর ও তা ডিলিট করতে পারবেন। “স্ট্রিংকস” অ্যাপের সাহায্যে সাধারনত দুজন ব্যবহারকারীর মধ্যে শেয়ার করা হয়েছে এমন সব ডাটা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।




তাছাড়া “স্ট্রিংকস” অ্যাপ থাকলে একজনের ছবি, মেসেজ, ভিডিও বা যে কোনো কিছু অনুমতি ছাড়া অন্যজন নিজের মোবাইলে সেভ করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে মেসেজ, ছবি কিংবা যে কোনো কিছুর স্ক্রিনশট নিয়ে কেউ তা সেভ করার চেষ্টা করলে সেভ করতে পারবে না , এ ধরনের চেষ্টা তিনবার করলে “স্ট্রিংকস” অ্যাপ সেসব ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেবে।

যারা “স্ট্রিংকস” অ্যাপ ব্যাবহার করবেন, সে সকল  ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যের নিশ্চয়তার ক্ষেত্রে এই অ্যাপটির নির্মাতারা জানিয়েছেন, কোনো কনটেন্ট ব্যবহারকারীরা যদি  ফোন থেকে কনটেন্ট ডিলিট করে,  তাহলে স্ট্রিংকসের সার্ভার থেকেও তা ডিলিট হয়ে যাবে।

স্ট্রিংকস অ্যাপটি কোথায় পাওয়া যাবে?

এই অ্যাপটি পাওয়া যাবে,  http://goo.gl/w658qV ঠিকানা থেকে। আপনার প্রয়োজনে আপনি এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

আপাতত এই অ্যাপটি আইওএস ডিভাইসে বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে। যে কোনো তথ্য ডিলিট করার ক্ষেত্রে অ্যাপটি অবশ্যই দুইজন ব্যবহারকারীর মোবাইলে ইনস্টল করা থাকতে হবে।


প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন : “স্ট্রিংকস ” অ্যাপটি কেন মোবাইলে ইনস্টল করে রাখা উচিত?

উত্তর : বর্তমান যুগে “স্ট্রিংকস” অ্যাপটি প্রত্যেক মোবাইল বা ডিভাইস ব্যাবহারকারীর জন্য মোবাইলে ইনস্টল করে রাখা অবশ্যই প্রয়োজন বা উচিত।

কারন ঘরে মোবাইল থাকলে শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত সকলে ব্যাবহার করে। কেহ জেনে ব্যাবহার করে, আবার কেহ না জেনে ব্যাবহার করে।

অনেক সময় ছোট্ট আদরের শিশু বাবুকে মা বাবা কান্না থামাতে কিংবা গেমস খলতে মোবাইল হাতে দেয়। তখন ছোট বাচ্চারা না বুঝে মোবাইল দিয়ে খেলতে শুরু করে। এক পর্যায়ে মোবাইলে থাকা ছবি, ভিডিও কিংবা প্রয়োজনীয় তথ্য চলে যায় অন্যের মোবাইলে।

এর ফলে বিভিন্ন বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। অথবা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এই অবস্থায় প্রয়োজন হয় অন্যের মোবাইলে যাওয়া ছবি, ভিডিও কিংবা অন্য যে তথ্য গুলো চলে গেছে সেগুলো ডিলেট করে ফেলা। আর এই জন্য প্রয়োজন স্ট্রিংকস অ্যাপ।

স্ট্রিংকস অ্যাপ আপনার মোবাইলে ইনস্টল করা থাকলে যে তথ্য গুলো ভূল বশ:ত চলে গেছে সেগুলো আপনার মোবাইল থেকে ডিলেট করে দিলে স্ট্রিংকসের সার্ভার থেকে ও চলে যাবে।

প্রশ্ন : দূরের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করতে আর কোনো উপায় আছে কি?

উত্তর : দূরের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করতে আরও উপায় আছে। সেক্ষেত্রে খুবই কার্যকর একটি app হলো “AnyDesk Remote control” । এই অ্যাপটি android বা PC উভয় ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

দূরের ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সর্বপ্রথম উভয় ফোনে app টি ইনস্টল করতে হবে।  ইনস্টল করার পর আপনার কাছে কিছু permission চাইবে। সকল permission গ্রহণ করার পর উভয় ফোনে একটি করে code যাবে, যার মাধ্যমে অন্য যে কোনো ফোন দ্বারা ফোনটি নিয়ন্ত্রন করা যাবে।

এখন আপনি যে ফোনটি বা ডিভাইসটি নিয়ন্ত্রন করতে চান, সেই ফোন বা ডিভাইস এর ৯ সংখ্যার কোডটি আপনার ফোন এর anydesk app এর remote address অংশে লিখবেন এবং পাশের arrow icon টিতে চাপ দিবেন।

এই সময় অপর ফোনটিতে app টি খোলা থাকতে হবে। আপনি arrow icon এ চাপ দিলে অপর ফোন এ একটি request যাবে।  অন্য ফোন এর ব্যবহারকারী তা accept করতে হবে। অপর ফোন এর ব্যাবহারকারী accept করার সাথে সাথে তার ফোন এর screen টি আপনার ফোন এর screen এ ভেসে উঠবে।

এরপর থেকে আপনি তার ফোনটি নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। অনুরূপভাবে এটি PC বা কম্পিউটারে ব্যবহার করতে পারবেন। এমনি ভাবে আপনি  খুব সহজে অনেক দূর থেকেও অপরের ফোন বা কম্পিউটার বা যে  কোনো ডিভাইস নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন।