যখন মোবাইল ফোন ছিল না তখন মানুষ যোগাযোগ করত কিভাবে?

মোবাইল ফোন আবিষ্কারের আগে, মানুষ যোগাযোগের জন্য বিভিন্ন উপায় ব্যবহার করত।

সাধারণত এর মধ্যে রয়েছে:

  • টেলিফোন: টেলিফোন আবিষ্কারের পর থেকেই এটি যোগাযোগের একটি জনপ্রিয় উপায় হয়ে উঠেছে। টেলিফোন ব্যবহার করে, লোকেরা দূরবর্তী স্থানে থাকা অন্য লোকেদের সাথে কথা বলত।
  • টেলিগ্রাফ: টেলিগ্রাফ হল একটি বৈদ্যুতিক যন্ত্র যা দূরবর্তী স্থানে থাকা লোকেদের সাথে বার্তা প্রেরণ করতে ব্যবহৃত হয়। টেলিগ্রাফের মাধ্যমে, লোকেরা টেক্সট, চিত্র বা কোড প্রেরণ করত।
  • পোস্ট: পোস্ট হল চিঠি, প্যাকেজ বা অন্যান্য সামগ্রী প্রেরণ করার একটি মাধ্যম। পোস্ট ব্যবহার করে, লোকেরা দূরবর্তী স্থানে থাকা অন্য লোকেদের সাথে যোগাযোগ করত।
  • ব্যক্তিগত সাক্ষাৎ: ব্যক্তিগত সাক্ষাৎ হল যোগাযোগের সবচেয়ে প্রাচীন এবং কার্যকর উপায়গুলির মধ্যে একটি। ব্যক্তিগত সাক্ষাতের মাধ্যমে, লোকেরা একে অপরের সাথে সরাসরি কথা বলত!

যাইহোক, বাংলাদেশে মোবাইল ফোন আবিষ্কারের আগে, লোকেরা যোগাযোগের জন্য এই উপায়গুলির মধ্যে একটি বা একাধিক ব্যবহার করত।

টেলিফোন এবং টেলিগ্রাফ শহরগুলিতে আরও জনপ্রিয় ছিল, যখন পোস্ট এবং ব্যক্তিগত সাক্ষাৎ গ্রামাঞ্চলে আরও বেশি ব্যবহৃত হত।

মোবাইল ফোনের আগমনের সাথে সাথে, যোগাযোগের উপায়গুলি ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হয়েছে।

মোবাইল ফোনগুলি টেলিফোন, টেলিগ্রাফ এবং পোস্টের সমস্ত বৈশিষ্ট্যকে একত্রিত করে এবং এটি লোকেদের আরও সহজে এবং দ্রুত যোগাযোগ করতে দেয়।