আপনার স্মার্টফোনের স্কীনের দাগ দূর করুন সহজে!

দীর্ঘদিন পর্যন্ত মোবাইল ব্যবহারের ফলে মোবাইলের স্কীনে ময়লা জমে বা কিছুর সাথে ঘষা খেয়ে নানা ধরনের দাগ পড়তে শুরু করে।

আপনি হাতে, পকেটে, ব্যাগে বা যত সুরক্ষিত জায়গাই রাখেন না কেন এতে নানা ধরনের দাগ পড়বেই। এই দাগের কারনে মোবাইলের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ও সৌন্দর্য হারিয়ে যায়।

এই দাগ গুলো দূর করা অতোটাও সোজা নয়।

অনেক সময় মোবাইলের স্কীনের দাগ উঠাতে বিভিন্ন ধরনের চেষ্টা করতে গিয়ে অনেকেই ফোনের পর্দা নষ্ট করে ফেলি। এর ফলে আমাদেরকে নতুন পর্দা ব্যবহার করতে হয়। এতে করে বেশ কিছুটা অর্থ ব্যায় করতে হয়।

কিন্তু আমরা যদি কিছু সহজ নিয়ম মেনে স্কীনের দাগ উঠানোর চেষ্টা করি তাহলে মোবাইলের পর্দার কোনো রুপ ক্ষতি ছাড়া আমরা সহজেই তা করতে পারবো।

1. টুথপেষ্ট

আমাদের মোবাইল স্কীনে থাকা দাগ দূর করার জন্য চাইলে আমরা টুথপেষ্ট ব্যবহার করতে পারি। এটি খুবই কার্যকর। এর ফলে আপনার মোবাইলের স্কীন ঠিক নতুন কেনা ফোনের মতোই চকচক করবে।

প্রথমত আপনি সামান্য পরিমান কিছু টুথপেষ্ট নিয়ে আলতোভাবে আপনার মোবাইলের সম্পূর্ণ স্কীনে মেখে নিবেন।

তারপর আলতোভাবে হাতের স্পর্শে দাগের জায়গায় ঘষে নিবেন এবং পরে নরম ভেজা কাপড় দিয়ে মোবাইল স্কীনটি মুছে ফেলুন। তাহলে আপনার মোবাইলের স্কীন সম্পূর্ণ দাগ মুক্ত হয়ে যাবে।

2. বেকিং সোডা

বেকিং সোডা ব্যবহার করেও মোবাইলের পর্দার দাগ দূর করা যায়। তবে এক্ষেত্রে আপনাদেরকে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

কেননা বেকিং সোডা ব্যবহার করে মোবাইলের দাগ পরিষ্কার করার সময় মোবাইলের ভিতর পানি ডুকে যেতে পারে এবং এর ফলে মোবাইল নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

তাই বেকিং সোডা ব্যবহার করে মোবাইলের স্কীন পরিষ্কারের জন্য প্রথমে একটি পরিষ্কার কাপড়কে বেকিং সোডায় ভিজিয়ে তারপর আলতোভাবে মোবাইল স্কীন ঘষে পরিষ্কার করবেন। এক্ষেত্রে যতটা সম্ভব সতর্ক থাকবেন।

3. বেসলিন বা মেরিল

সাধারণত শীতকালে আমরা হাত-পা ও ঠোটকে মসৃন রাখার জন্য এই বেসলিন বা মেরিল ব্যবহার করি।

তবে আপনি চাইলে মোবাইলের স্কীনের দাগ দূরীকরণের ক্ষেত্রেও এটি ব্যবহার করতে পারেন।

4. ম্যাজিক ইরেজার

ম্যাজিক ইরেজার দিয়েও মোবাইলের দাগ দূর করা যায়। এটি দেখতে অনেকটা সিরিজ কাগজের মতো। তাই এটি ব্যবহারের ক্ষেত্রে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

অন্যাথায় দাগ দূর করার পরিবর্তে মোবাইলে দাগ পড়ার সম্ভবনা বেড়ে যেতে পারে। তবে বেশিরভাগ সময় এটি না ব্যবহার করাই ভালো।

5. বিভিন্ন ধরনের তেল

যেকোনো ধরনের তেল ব্যবহার করেই আপনি আপনার মোবাইলের দাগ পরিষ্কার করতে পারবেন। দাগের স্থানে কিছুটা তেল দিয়ে একটা পরিষ্কার কাপড় দিয়ে ঘষলেই ঔ দাগ পরিষ্কার হয়ে যাবে।

এটা অনেক সজ একটি পদ্ধতি ও সহজলভ্য ।  কারন আমাদের সবার ঘরেই বিভিন্ন প্রকার তেল রয়েছে।

6. গাড়ির দাগ তোলার ক্রিম

গাড়ির দাগ তোলার ক্রিম, যেমন: টার্টল ওয়াক্স,থ্রিএম স্ক্র্যাচ ও সোয়াল রিমুভার। এগুলো সাধারণত গাড়ির বিভিন্ন দাগ দূর করার জন্য ব্যবহার করা হয়।

আপনি চাইলে মোবাইলেের দাগ দূর করার ক্ষেত্রেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার মোবাইলে কোনো ধরনের ক্ষতি সাধন হবে না। এবং অল্প পরিশ্রমে মোবাইল চকচকে ও পরিষ্কার হয়ে যাবে। এটি খুবই কার্যকর।

7. বাচ্চাদের পাউডার

বাচ্চাদের পাউডার দিয়েও মোবাইলের স্কীনের দাগ দূর করা যায়। তবে এটির ব্যবহার কিছুটা বেকিং সোডার মতো হওয়ায় একটু সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

প্রথমত পাউডারের সাথে পানি মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করবেন। তারপর কটন বা কাপড়ে একটু একটু নিয়ে মোবাইলের স্কীনে বৃত্তাকার ভাবে ঘষে পরিষ্কার করতে হবে।

তবে পেস্ট তৈরির ক্ষেত্রে অবশ্যই ঘন করবেন। কেননা পাতলা পানি পানি জাতীয় করলে এই পানি মোবাইলের অভ্যন্তরে ডুকে মোবাইলের ক্ষতি সাধন করতে পারে।

8. ব্রাসো, সিলভার বা অন্যান্য পলিশ ব্যবহার

মোবাইলে থাকা বড় বড় দাগ দূর করার জন্য এই পলিশ গুলো ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথমত একটি পাত্রে এই পলিশ ডেলে নিবেন। তারপর একটা কাপড়ের ছোট টুকরো পলিশে ভিজিয়ে নিয়ে ঔ দাগের উপর ঘষলে তা পরিষ্কার হয়ে যাবে। দাগ পরিষ্কার হওয়ার পর একটা শুখনো কাপড় দিয়ে পলিশ মুছে নিবেন।

9. সাবান বা লিকুইড ব্যবহার

সাবান বা লিকুইড ব্যবহার করে প্রায় সব ধরনের দাগই দূর করা যায়। আপনি চাইলে মোবাইলের স্কীনের দাগ ও দূর করতে পারেন।

প্রথমত হাতে,কটনে বা কাপড়ে একটু সাবান বা লিকুইড নিয়ে দাগের জায়গায় ঘষবেন এবং শুখনো কাপড় দিয়ে মুছে ফেলবেন।

10.পানির ব্যবহার

মোবাইলের দাগ দূর করার সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি হলো এই পানির ব্যবহার।

পানিতে একটু কাপড় ভিজেয়ে নিবেন। এবং ঔ ভেজা কাপড় দিয়ে দাগের জায়গায় ঘষলে সহজেই ঔ দাগ উঠে যাবে। অবশ্যই এই ক্ষেত্রে প্রতিদিন পরিষ্কার করবেন।